মঙ্গলবার, ৪ জুন, ২০১৯

Harry Beckএর টিউব ম্যাপের আদলে ঢাকার BRT-MRT

১৯৩৩ সালে ইলেক্ট্রিকাল ড্রাফটসম্যান হ্যারি বেক লন্ডনের টিউবের (মেট্রো) একটা সহজবোধ্য সোজাসাপ্টা ম্যাপ তৈরী করেন। এটা মোটেই আসল ম্যাপের মত আঁকাবাঁকা বা মাপজোক মেপে করা ছিল না, বরং সমস্ত গন্তব্যগুলো সহজ সরলরেখা দিয়ে ধারাবাহিক ভাবে করা হয়েছিল। এক স্থান হতে আরেক স্থানে যাওয়ার জন্য এটা সাধারণ মানুষের কাছে পুরা জটিল নেটওয়র্কটা সহজবোধ্য করে তুলেছিল। এখনকার সমস্ত শহরের গণপরিবহণের ম্যাপগুলো এভাবে করা হয় এবং প্রতিটা স্টেশনে লাগিয়ে রাখা হয় --- এতে করে যাত্রীগণ অতি সহজেই কোথায় গিয়ে বাস বা ট্রেন পরিবর্তন করতে হবে তা সহজে বুঝতে পারে এবং পরিকল্পনা করতে পারে।

অন্য শহরের গণপরিবহণ ম্যাপ দেখেছি অনেকবার, এবার নিজের শহরেরটা দেখতে কেমন লাগে সেই কৌতুহল ছিল, কিন্তু উপায় ছিল না। ঢাকা শহরে যে গণপরিবহণ ব্যবস্থার পরিকল্পনা বিভিন্ন ওয়েবসাইট আর পত্রিকা ঘেটে যত তথ্য পেয়েছি সেগুলো দিয়ে যতদুর সম্ভব সঠিকভাবে একটা প্রাথমিক গণপরিবহণ ম্যাপ তৈরী করলাম।

মতামত ও পরামর্শ সাদরে গ্রহণযোগ্য।


শুক্রবার, ৩১ মে, ২০১৯

BRT-MRT ম্যাপ বানালাম একটা

কলকাতায় ১টা মেট্রো লাইন। ইদানিং ২য় লাইনের কাজ চলছে। তাই আমি ভেবেছিলাম, ঢাকায়ও ১টা BRT আর ১টা MRT করেই ক্ষ্যান্ত দেয়া হবে। কিন্তু না ... ... বাকী চারটাও ২০৩০ সালের মধ্যে হবে বলে উদ্যোগ নেয়া হচ্ছে -- নিঃসন্দেহে ঢাকার যে অবস্থা তাতে এর প্রয়োজন আছে বলেই। 

ম্যাপ দেখার একটা বদঅভ্যাস আছে আমার (পারিবারিকভাবে, মানে মা'য়ের কাছ থেকে পেয়েছি), তাই সবগুলো লাইন হলে এখানকার ম্যাপে কেমন দেখাবে সেটা দেখতে ইচ্ছা করতো। কিন্তু নেটে সার্চ করে সবগুলো একসাথে পাইনা -- হয়তো অনেকগুলোর ফিজিবিলিটি/ডিজাইন ফাইনাল হয়নি তাই। কিন্তু তাই বলে তো আমি ক্ষ্যান্ত দিতে পারি না। তাই সব রিপোর্ট টিপোর্ট ঘেটে আর গুগল ম্যাপের স্ক্রিনশট নিয়ে তার উপরে বানিয়ে ফেললাম একটা ম্যাপ।

RSTP  অনুযায়ী MRT  Line - 5  এর আন্ডারগ্রাউন্ড  Southern  Route টি  গাবতলী থেকে আদাবর,  মোহাম্মদপুর, কলাবাগান, কারওয়ান বাজার, হাতিরঝিল, দক্ষিন বাড্ডা হয়ে আফতাব নগর পর্যন্ত যাবে। তবে আরেক জায়গায় আফতাবনগরে ৩টা স্টপেজ হয়ে দাসেরকান্দি (বালু নদীর সাথে, দাসেরকান্দিতে ওয়াসার ওয়েস্টওয়াটার ট্রিটমেন্ট প্লান্ট হচ্ছে) পর্যন্ত দেখেছি। আরেক জায়গায় বালু নদী পার করে ভুলতার কাছাকাছি যাবে বলে পড়েছি।

বুধবার, ১৩ ফেব্রুয়ারী, ২০১৯

জাপানের রাস্তায় স্পিড ক্যামেরা: উচ্চতর জ্ঞানের প্রয়োগ ও হাবিজাবি

১।
জাপানে একটা বেশ অদ্ভুদ ব্যাপার লক্ষ্য করেছিলাম। টোল রোডের কিছু জায়গায় সাইনবোর্ড দেয়া যে কিছুদুর (যেমন: ৩০০ মিটার) সামনে ট্রাফিক ক্যামেরা আছে। তাই না দেখে সমস্ত গাড়িগুলো সব গতি কমিয়ে ৮০ কিমি/ঘন্টার নিচে চলতো, কারণ ঐ রাস্তার স্পিড লিমিট ৮০ কিমি/ঘন্টা। আর যেইনা ক্যামেরা পার হল, আবার আগের মত গতি বাড়িয়ে ১৩০-১৫০ কিমি/ঘন্টায় গাড়ি চালাতো। আমরা বিদেশিগণতো অবাক, আরে এখানকার পুলিশ বেকুব নাকি!! কারণ অন্য জায়গায় হলে ক‌োথায় ক্যামেরা সেগুলো জানানোর প্রশ্নই উঠে না – ওভারস্পিডিং করলে সুন্দর করে বাসায় জরিমানার স্লিপ চলে আসবে। এ আপাত বোকামির ঘটনা বরং জাপানি পুলিশের দক্ষতাতে আমার শ্রদ্ধা অনেক বাড়িয়ে দিয়েছে। কারণটা খুবই সাধারণ ---

২।
মানুষকে নিরাপদে এবং দ্রুততর সময়ে গন্তব্যে পৌছানোর লক্ষে প্রকৌশলীগণ প্রতিনিয়ত উন্নততর মসৃন রাস্তা তৈরী করার চেষ্টা করেন। আর সেই রাস্তায় আমাদের দেশে যখন হাতির মত উঁচা স্পিড ব্রেকার দেয়া হয় সেটা দেখে তখন আমার শিক্ষাদীক্ষা হ‌োঁচট খায়! গতি কমাতে চাইলে সেখানে রাস্তা মসৃন ও উন্নত না করে এবড়ো থেবড়ো অবস্থায় ফেলে রাখাই বেশি যুক্তিযুক্ত এবং কম খরচের অপশন। হাতির মত উঁচা স্পিডব্রেকারে একটি গতিময় গাড়ি যদি এসেই পড়ে তাহলে সেটার স্প্রিং ভাঙ্গবে এবং সেটা হটাত ঝাঁকিতে ব্যালেন্স হারিয়ে নিজেই দূর্ঘটনায় পতিত হবে। একান্তই যদি গতিসীমা কমাতে বলা হয় তাহলে সেখানে ছোট ছোট কয়েকটি স্পিডব্রেকার দেয়া উচিত যেটা গতিতে পার হলেও গাড়ির ক্ষতি হবে না, কিন্তু গাড়ির চালক টের পাবে যে গতি কমাতে বলা হচ্ছে। এর পরে একটু বড় স্পিডব্রেকার দেয়া যেতে পারে। ইদানিং দেশের হাইওয়েতে এরকম গুড়ি গুড়ি গুচ্ছ স্পিডব্রেকার দেয়া হয়েছে। কিন্তু সেগুলো দেখে কোন কোন ইতর গাড়িচালক দাঁত কেলিয়ে, তারপর আরো জোরে টান দিয়ে চলে যায়।

৩।
যেহেতু রাস্তা নকশা ও তৈরী করা সিভিল ইঞ্জিনিয়ারের কাজ, তাই সেই রাস্তার স্পিড-লিমিট বা নিরাপদ গতিসীমাও নির্ধারণ করে দেয় সিভিল ইঞ্জিনিয়ার। রাস্তায় গতিসীমা দেয়া কিন্তু খুবই ঝামেলার কাজ। কারণ, একটি উজ্জ্বল দিনে একটা নির্দিষ্ট রাস্তায় নিরাপদে যত দ্রুত গাড়ি চালানো সম্ভব, সেই একই রাস্তায় সন্ধ্যার আলো আঁধারীতে নিরাপদে চলতে হলে একটু কম গতিতে চলতে হবে। এর সাথে যদি যুক্ত হয় গুড়ি গুড়ি বৃষ্টি, অর্থাৎ পিচ্ছিল বা স্লিপারি রাস্তা তাহলে নিরাপদ গতি আরো কম হতে হবে। এছাড়া বিভিন্ন রকম গাড়ি, এবং তাদের ফিটনেস অনুযায়ীও নিরাপদে যাত্রার গতিসীমা কম বেশি হবে। যেহেতু দিনের বেলা, রাতের বেলা, বৃষ্টির সময় আলাদা আলাদা গতিসীমা দেয়া সম্ভব হচ্ছে না, তাই সবরকম বিপদের কথা মাথায় রেখে একটা রক্ষণশীল গতিসীমা লিখে দেয়া হয়। কিন্তু আসলে, একটি উজ্জ্বল শুকনা দিনে ঐ রাস্তায় ঐ গতিসীমার চেয়ে অনেক বেশি গতিতেও নিরাপদে চলা যায়। উন্নত বিশ্বে কিছু রাস্তায় ডিজিটাল ডিসপ্লে বোর্ডে কন্ডিশন অনুযায়ী নিরাপদ গতিসীমা দেখানো হয়।

৪।
তাহলে ব্যাপারটা দাঁড়াচ্ছে, “সামনে ক্যামেরা” সাইনবোর্ডটা দেখে যদি গাড়িচালক গতি কমিয়ে সেই লিমিটের মধ্যে গাড়ি চালায় তাহলে বোঝা যায় সে হুঁশে আছে, সবকিছু খেয়াল করতে পারছে। সুতরাং আগে-পিছে বেশি গতিতে গাড়ি চালালেও রাস্তায় যাত্রী ও গাড়ির নিরাপত্তাজনিত কোনো সমস্যা নাই। কিন্তু কোন ড্রাইভার যদি সেই সাইন দেখে খেয়াল না করে, তখন সেই বেশি গতি অন্যদের ক্ষেত্রে নিরাপদ হলেও, ঐ চালক আসলে বেখেয়ালে গাড়ি চালাচ্ছে - যেটা রাস্তা ব্যবহারকারীগণের নিরাপত্তার জন্য হুমকিস্বরূপ – সুতরাং ক্যামেরাতে ধরা পড়ে তার জরিমানা হওয়া যুক্তিযুক্ত।

জাপানি পুলিশ রাস্তার নিরাপত্তার মূল বিষয়টা সঠিকভাবে বুঝে বলেই ও ধরণের একটা সিস্টেম করেছে। সুতরাং তারা আসলেই জনগণের নিরাপত্তা নিশ্চিত করার জন্য কাজ করছে। অযথা মানুষকে হয়রানি করার জন্য সিস্টেমকে কাজে লাগাচ্ছে না।

৫।
শুধু রাস্তায় গতিসীমাই নয়, এরকম আরো অনেক সিস্টেম আছে যেগুলো আসলে অক্ষরে অক্ষরে পালন করা আবশ্যকীয় নয়, ব্যাখ্যা জেনে সঠিক প্রয়োগ করা যুক্তিযুক্ত। কিন্তু সেগুলো প্রয়োগকারী কর্তৃপক্ষ অন্যদেরকে হয়রানি করার জন্য ব্যবহার করে। হতে পারে প্রয়োগকারী কর্তৃপক্ষ ঐ নিয়মের মূল বিষয়টাই বোঝে না (না বুঝে মুখস্থ বিদ্যা), না হয় বোঝার চেষ্টাও করে না - অর্থাৎ নিপীড়ন করাই তাই মূল উদ্দেশ্য।

[ ইদানিং এরকম বেকুবি/ নিপীড়নের উদাহরণ দেখে পোস্টটির অবতারণা করলাম]

বৃহস্পতিবার, ১৮ অক্টোবর, ২০১৮

আইনস্টাইনের ধাঁধা


আমার খুব পছন্দের একটি ধাঁধাঁ এটি।
নিচে বিখ্যাত ধাঁধাঁটি এবং সেটা সমাধান ধাপে ধাপে করে দেয়া আছে।

ধাঁধাঁর প্রশ্ন:

পাশাপাশি ৫ রঙের ৫টা বাড়ি আছে। প্রতি বাড়িতে ভিন্ন দেশের একজন করে ব্যক্তি বাস করেন। এই পাঁচজন বাড়ির মালিক, প্রত্যেকেই নির্দিষ্ট ধরণের পানীয়, সিগারেট পান করেন এবং প্রাণী পোষেন। প্রত্যেক ব্যক্তির পানীয়, সিগারেট ভিন্ন ব্র্যান্ডের এবং পোষা প্রাণীও আলাদা। নিচে তাঁদের সম্পর্কে কিছু তথ্য দেয়া হল:

তথ্যসমূহ
  • ব্রিটিশ ব্যক্তি লাল বাসায় থাকেন।
  • সুইডিশ ব্যক্তি কুকুর পোষেন।
  • ড্যানিশ ব্যক্তি চা পান করেন।
  • সবুজ বাসাটা সাদা বাসার ঠিক বামপাশে।
  • সবুজ বাসার মালিক কফি পান করেন।
  • পলমল সিগারেট খান যে ব্যক্তি, উনি পাখি পোষেন।
  • হলুদ বাড়ির মালিক ডানহিল সিগারেট খান।
  • মাঝের বাড়ির মালিক দুধ পান করেন।
  • নরওয়েজিয়ান ব্যক্তি প্রথম বাসায় থাকেন।
  • ব্লেন্ড সিগারেট যিনি খান, তিনি বিড়াল পালকের প্রতিবেশি।
  • ঘোঁড়া পোষেন যিনি তাঁর প্রতিবেশি ডানহিল সিগারেট খান।
  • যিনি ব্লু-মাস্টার সিগারেট খান তিনি বিয়ার পান করেন।
  • জার্মান ব্যক্তি প্রিন্স সিগারেট খান।
  • নরওয়েজিয়ান ব্যক্তি নীল বাড়ির পাশের বাসায় থাকেন।
  • ব্লেন্ড সিগারেট খান যিনি, তাঁর প্রতিবেশি পানি পান করেন।
প্রশ্ন হল: কে মাছ পোষেন?
(Einstein wrote this riddle this century. He said that 98% of the world could not solve it. )


সমাধাণ:
বাদ দেয়া পদ্ধতি বা মেথড অব এলিমিনেশন পদ্ধতিতে এটা সমাধান করা যায়। তবে বিষয়টা চোখের সামনে দেখতে পারলে বুঝা সহজ হয়। তাই প্রথমেই সমস্ত তথ্য বিশ্লেষন করে নিচের মত সম্ভাব্য উত্তরের ছক তৈরী করি

বৈশিষ্ট
১ নং বাড়ি
২ নং বাড়ি
৩ নং বাড়ি
৪ নং বাড়ি
৫ নং বাড়ি
রঙ লাল, নীল,
সবুজ, হলুদ,
সাদা
লাল, নীল,
সবুজ, হলুদ,
সাদা
লাল, নীল,
সবুজ, হলুদ,
সাদা
লাল, নীল,
সবুজ, হলুদ,
সাদা
লাল, নীল,
সবুজ, হলুদ,
সাদা
জাতীয়তা ব্রিটিশ, জার্মান,
সুইডিশ, ড্যানিশ,
নরওয়েজিয়ান
ব্রিটিশ, জার্মান,
সুইডিশ, ড্যানিশ,
নরওয়েজিয়ান
ব্রিটিশ, জার্মান,
সুইডিশ, ড্যানিশ,
নরওয়েজিয়ান
ব্রিটিশ, জার্মান,
সুইডিশ, ড্যানিশ,
নরওয়েজিয়ান
ব্রিটিশ, জার্মান,
সুইডিশ, ড্যানিশ,
নরওয়েজিয়ান
পানীয় চা, কফি,
বিয়ার, দুধ,
পানি
চা, কফি,
বিয়ার, দুধ,
পানি
চা, কফি,
বিয়ার, দুধ,
পানি
চা, কফি,
বিয়ার, দুধ,
পানি
চা, কফি,
বিয়ার, দুধ,
পানি
ধূমপান পলমল, ডানহিল,
ব্লু মাস্টার, ব্লেন্ড,
প্রিন্স
পলমল, ডানহিল,
ব্লু মাস্টার, ব্লেন্ড,
প্রিন্স
পলমল, ডানহিল,
ব্লু মাস্টার, ব্লেন্ড,
প্রিন্স
পলমল, ডানহিল,
ব্লু মাস্টার, ব্লেন্ড,
প্রিন্স
পলমল, ডানহিল,
ব্লু মাস্টার, ব্লেন্ড,
প্রিন্স
পোষা প্রাণী কুকুর, বিড়াল,
ঘোঁড়া, পাখি,
মাছ
কুকুর, বিড়াল,
ঘোঁড়া, পাখি,
মাছ
কুকুর, বিড়াল,
ঘোঁড়া, পাখি,
মাছ
কুকুর, বিড়াল,
ঘোঁড়া, পাখি,
মাছ
কুকুর, বিড়াল,
ঘোঁড়া, পাখি,
মাছ

এবার শর্তগুলো দেখে একটু একটু করে বাদ দিতে থাকি। যেহেতু আমরা অবস্থান অনুযায়ী সাজিয়ে নিয়েছি, তাই প্রথমে সেই শর্তগুলো ধরতে হবে যেগুলো বাসার অবস্থানের সাথে সরাসরি সম্পর্কিত:
  • মাঝের বাড়ির মালিক দুধ পান করেন। - কাজেই অন্য বাসাগুলোর সম্ভাব্য উত্তর থেকে এটা বাদ যাবে।
  • নরওয়েজিয়ান ব্যক্তি প্রথম বাসায় থাকেন। - কাজেই অন্য বাসাগুলোর সম্ভাব্য উত্তর থেকে এটা বাদ যাবে।
তাহলে আমরা এরকম সিদ্ধান্তে আসতে পারি:
বৈশিষ্ট
১ নং বাড়ি
২ নং বাড়ি
৩ নং বাড়ি
৪ নং বাড়ি
৫ নং বাড়ি
রঙ লাল, নীল,
সবুজ, হলুদ,
সাদা
লাল, নীল,
সবুজ, হলুদ,
সাদা
লাল, নীল,
সবুজ, হলুদ,
সাদা
লাল, নীল,
সবুজ, হলুদ,
সাদা
লাল, নীল,
সবুজ, হলুদ,
সাদা
জাতীয়তা
নরওয়েজিয়ান
ব্রিটিশ, জার্মান,
সুইডিশ, ড্যানিশ,
ব্রিটিশ, জার্মান,
সুইডিশ, ড্যানিশ,
ব্রিটিশ, জার্মান,
সুইডিশ, ড্যানিশ,
ব্রিটিশ, জার্মান,
সুইডিশ, ড্যানিশ,
পানীয় চা, কফি,
বিয়ার, পানি
চা, কফি,
বিয়ার, পানি
দুধ
চা, কফি,
বিয়ার, পানি
চা, কফি,
বিয়ার, পানি
ধূমপান পলমল, ডানহিল,
ব্লু মাস্টার, ব্লেন্ড,
প্রিন্স
পলমল, ডানহিল,
ব্লু মাস্টার, ব্লেন্ড,
প্রিন্স
পলমল, ডানহিল,
ব্লু মাস্টার, ব্লেন্ড,
প্রিন্স
পলমল, ডানহিল,
ব্লু মাস্টার, ব্লেন্ড,
প্রিন্স
পলমল, ডানহিল,
ব্লু মাস্টার, ব্লেন্ড,
প্রিন্স
পোষা প্রাণী কুকুর, বিড়াল,
ঘোঁড়া, পাখি,
মাছ
কুকুর, বিড়াল,
ঘোঁড়া, পাখি,
মাছ
কুকুর, বিড়াল,
ঘোঁড়া, পাখি,
মাছ
কুকুর, বিড়াল,
ঘোঁড়া, পাখি,
মাছ
কুকুর, বিড়াল,
ঘোঁড়া, পাখি,
মাছ


অবস্থান সংক্রান্ত আরো শর্ত থেকে কিছু বিষয় বোঝা যায়:
  • সবুজ বাসাটা সাদা বাসার ঠিক বামপাশে ---- অর্থাৎ সবুজ বাসাটা সবার ডানদিকে হতে পারবে না। একই ভাবে সাদা বাসাটা সবচেয়ে বামদিকে হতে পারবে না। কাজেই পরবর্তী ধাপে ঐ দুটি সম্ভাব্য উত্তরও বাদ দেই।
একজনের জাতীয়তা জানা গিয়েছে। কাজেই জাতীয়তা সংক্রান্ত শর্তগুলো মিলিয়ে ওনার জাতীয়তার সাথে যেটা যায় না সেগুলো বাদ দেই:
  • ব্রিটিশ ব্যক্তি লাল বাসায় থাকেন। – অর্থাৎ নরওয়েজিয়ান ব্যক্তির বাসা লাল হতে পারে না
  • সুইডিশ ব্যক্তি কুকুর পোষেন। – অর্থাৎ নরওয়েজিয়ান ব্যক্তির প্রাণী কুকুর হতে পারে না
  • ড্যানিশ ব্যক্তি চা পান করেন। – অর্থাৎ নরওয়েজিয়ান ব্যক্তির পানীয় চা হতে পারে না
  • জার্মান ব্যক্তি প্রিন্স সিগারেট খান। – অর্থাৎ নরওয়েজিয়ান ব্যক্তির সিগারেট প্রিন্স হতে পারে না
পানীয় জানা গিয়েছে একজনের কাজেই পানীয় সংক্রান্ত বিষয়গুলো একটু দেখতে পারি:
  • ড্যানিশ ব্যক্তি চা পান করেন। – যিনি দুধ খান তিনি ড্যানিশ হতে পারেন না
  • সবুজ বাসার মালিক কফি পান করেন। - যিনি দুধ খান তিনি সবুজ বাসার মালিক হতে পারেন না

বৈশিষ্ট
১ নং বাড়ি
২ নং বাড়ি
৩ নং বাড়ি
৪ নং বাড়ি
৫ নং বাড়ি
রঙ লাল, নীল,
সবুজ, হলুদ, সাদা
লাল, নীল,
সবুজ, হলুদ,সাদা
লাল, নীল,
সবুজ, হলুদ, সাদা
লাল, নীল,
সবুজ, হলুদ,সাদা
লাল, নীল,
সবুজ, হলুদ, সাদা
জাতীয়তা
নরওয়েজিয়ান
ব্রিটিশ, জার্মান,
সুইডিশ, ড্যানিশ,
ব্রিটিশ, জার্মান,
সুইডিশ, ড্যানিশ
ব্রিটিশ, জার্মান,
সুইডিশ, ড্যানিশ,
ব্রিটিশ, জার্মান,
সুইডিশ, ড্যানিশ,
পানীয় চা, কফি,
বিয়ার, পানি
চা, কফি,
বিয়ার, পানি
দুধ
চা, কফি,
বিয়ার, পানি
চা, কফি,
বিয়ার, পানি
ধূমপান পলমল, ডানহিল,
ব্লু মাস্টার, ব্লেন্ড, প্রিন্স
পলমল, ডানহিল,
ব্লু মাস্টার, ব্লেন্ড,
প্রিন্স
পলমল, ডানহিল,
ব্লু মাস্টার, ব্লেন্ড,
প্রিন্স
পলমল, ডানহিল,
ব্লু মাস্টার, ব্লেন্ড,
প্রিন্স
পলমল, ডানহিল,
ব্লু মাস্টার, ব্লেন্ড,
প্রিন্স
পোষা প্রাণী কুকুর, বিড়াল, ঘোঁড়া,
পাখি, মাছ
কুকুর, বিড়াল,
ঘোঁড়া, পাখি,
মাছ
কুকুর, বিড়াল,
ঘোঁড়া, পাখি,
মাছ
কুকুর, বিড়াল,
ঘোঁড়া, পাখি,
মাছ
কুকুর, বিড়াল,
ঘোঁড়া, পাখি,
মাছ

  • নরওয়েজিয়ান ব্যক্তি নীল বাড়ির পাশের বাসায় থাকেন। – সুতরাং নীল বাড়ি পেয়ে গেলাম। অন্যগুলোর সম্ভাব্য রং থেকে নীল রং মুছে দেই।
বৈশিষ্ট
নং বাড়ি
নং বাড়ি
নং বাড়ি
নং বাড়ি
নং বাড়ি
রঙ নীল, সবুজ, হলুদ
লাল, নীল,
সবুজ, হলুদ,সাদা
লাল, নীল,
হলুদ, সাদা
লাল, নীল, সবুজ,
হলুদ, সাদা
লাল, নীল,
হলুদ, সাদা
জাতীয়তা
নরওয়েজিয়ান
ব্রিটিশ, জার্মান,
সুইডিশ, ড্যানিশ,
ব্রিটিশ, জার্মান,
সুইডিশ
ব্রিটিশ, জার্মান,
সুইডিশ, ড্যানিশ,
ব্রিটিশ, জার্মান,
সুইডিশ, ড্যানিশ,
পানীয় কফি,
বিয়ার, পানি
চা, কফি,
বিয়ার, পানি
দুধ
চা, কফি,
বিয়ার, পানি
চা, কফি,
বিয়ার, পানি
ধূমপান পলমল, ডানহিল,
ব্লু মাস্টার, ব্লেন্ড
পলমল, ডানহিল,
ব্লু মাস্টার, ব্লেন্ড,
প্রিন্স
পলমল, ডানহিল,
ব্লু মাস্টার, ব্লেন্ড,
প্রিন্স
পলমল, ডানহিল,
ব্লু মাস্টার, ব্লেন্ড,
প্রিন্স
পলমল, ডানহিল,
ব্লু মাস্টার, ব্লেন্ড,
প্রিন্স
পোষা প্রাণী বিড়াল, ঘোঁড়া,
পাখি, মাছ
কুকুর, বিড়াল,
ঘোঁড়া, পাখি,
মাছ
কুকুর, বিড়াল,
ঘোঁড়া, পাখি,
মাছ
কুকুর, বিড়াল,
ঘোঁড়া, পাখি,
মাছ
কুকুর, বিড়াল,
ঘোঁড়া, পাখি,
মাছ

আবার রং সংক্রান্ত শর্তগুলো দেখি:
  • সবুজ বাসাটা সাদা বাসার ঠিক বামপাশে। – নীল বাসার ডানে সাদা বাসা হতে পারবে না। আবার নীলের বামের বাসাটাও সবুজ হতে পারবে না –– এতে নরওয়েজিয়ানের বাসার রং পেয়ে যাচ্ছি (হলুদ)।
  • অন্য বাসাগুলোর সম্ভাব্য রং থেকে নরওয়েজিয়ানের বাসার রং (=হলুদ) বাদ দেই। এতে মাঝের বাসার রং হিসেবে শুধু লাল থেকে যাচ্ছে।
  • অন্যগুলো থেকে লাল বাদ দেই। এতে ৫ নং বাসার রং সাদা পাওয়া গেল।
  • সুতরাং ৪ নং বাসা সবুজ রঙের।

বৈশিষ্ট
নং বাড়ি
নং বাড়ি
নং বাড়ি
নং বাড়ি
নং বাড়ি
রঙ সবুজ, হলুদ
নীল
লাল,
হলুদ, সাদা
লাল, সবুজ,
হলুদ, সাদা
লাল,
হলুদ, সাদা
জাতীয়তা
নরওয়েজিয়ান
ব্রিটিশ, জার্মান,
সুইডিশ, ড্যানিশ,
ব্রিটিশ, জার্মান,
সুইডিশ
ব্রিটিশ, জার্মান,
সুইডিশ, ড্যানিশ,
ব্রিটিশ, জার্মান,
সুইডিশ, ড্যানিশ,
পানীয় কফি,
বিয়ার, পানি
চা, কফি,
বিয়ার, পানি
দুধ
চা, কফি,
বিয়ার, পানি
চা, কফি,
বিয়ার, পানি
ধূমপান পলমল, ডানহিল,
ব্লু মাস্টার, ব্লেন্ড
পলমল, ডানহিল,
ব্লু মাস্টার, ব্লেন্ড,
প্রিন্স
পলমল, ডানহিল,
ব্লু মাস্টার, ব্লেন্ড,
প্রিন্স
পলমল, ডানহিল,
ব্লু মাস্টার, ব্লেন্ড,
প্রিন্স
পলমল, ডানহিল,
ব্লু মাস্টার, ব্লেন্ড,
প্রিন্স
পোষা প্রাণী বিড়াল, ঘোঁড়া,
পাখি, মাছ
কুকুর, বিড়াল,
ঘোঁড়া, পাখি,
মাছ
কুকুর, বিড়াল,
ঘোঁড়া, পাখি,
মাছ
কুকুর, বিড়াল,
ঘোঁড়া, পাখি,
মাছ
কুকুর, বিড়াল,
ঘোঁড়া, পাখি,
মাছ
  • ব্রিটিশ ব্যক্তি লাল বাসায় থাকেন। কাজেই এখন লাল বাসায় জাতীয়তা ব্রিটিশ করে অন্য বাসাগুলোর উত্তর থেকে ব্রিটিশ বাদ দেই।
  • সবুজ বাসার মালিক কফি পান করেন। - যাদের উত্তর সবুজ নয় তাদের পানীয় কফি হতে পারবে না।
  • হলুদ বাড়ির মালিক ডানহিল সিগারেট খান --- সুতরাং অন্য বাসা থেকে ডানহিল বাদ যাবে।
বৈশিষ্ট
নং বাড়ি
নং বাড়ি
নং বাড়ি
নং বাড়ি
নং বাড়ি
রঙ
হলুদ
নীল
লাল
সবুজ
সাদা
জাতীয়তা
নরওয়েজিয়ান
ব্রিটিশ, জার্মান,
সুইডিশ, ড্যানিশ,
ব্রিটিশ, জার্মান,
সুইডিশ
ব্রিটিশ, জার্মান,
সুইডিশ, ড্যানিশ,
ব্রিটিশ, জার্মান,
সুইডিশ, ড্যানিশ,
পানীয় কফি,
বিয়ার, পানি
চা, কফি,
বিয়ার, পানি
দুধ
চা, কফি,
বিয়ার, পানি
চা, কফি,
বিয়ার, পানি
ধূমপান পলমল, ডানহিল,
ব্লু মাস্টার, ব্লেন্ড
পলমল, ডানহিল,
ব্লু মাস্টার, ব্লেন্ড,
প্রিন্স
পলমল, ডানহিল,
ব্লু মাস্টার, ব্লেন্ড,
প্রিন্স
পলমল, ডানহিল,
ব্লু মাস্টার, ব্লেন্ড,
প্রিন্স
পলমল, ডানহিল,
ব্লু মাস্টার, ব্লেন্ড,
প্রিন্স
পোষা প্রাণী বিড়াল, ঘোঁড়া,
পাখি, মাছ
কুকুর, বিড়াল,
ঘোঁড়া, পাখি,
মাছ
কুকুর, বিড়াল,
ঘোঁড়া, পাখি,
মাছ
কুকুর, বিড়াল,
ঘোঁড়া, পাখি,
মাছ
কুকুর, বিড়াল,
ঘোঁড়া, পাখি,
মাছ

এবার শর্তগুলো আবার দেখি। যেই শর্তগুলো শতভাগ পূরণ করে উত্তরে পেয়ে গিয়েছি ওগুলো আপাতত কেটে দেই।
  • ব্রিটিশ ব্যক্তি লাল বাসায় থাকেন।
  • সবুজ বাসাটা সাদা বাসার ঠিক বামপাশে
  • সবুজ বাসার মালিক কফি পান করেন।
  • হলুদ বাড়ির মালিক ডানহিল সিগারেট খান।
  • মাঝের বাড়ির মালিক দুধ পান করেন।
  • নরওয়েজিয়ান ব্যক্তি প্রথম বাসায় থাকেন।
  • নরওয়েজিয়ান ব্যক্তি নীল বাড়ির পাশের বাসায় থাকেন।
এবার বাকী শর্তগুলো দেখি
  • সুইডিশ ব্যক্তি কুকুর পোষেন। - ৩ নং বাসায় বৃটিশ ব্যক্তির প্রাণী কুকুর হতে পারে না।
  • ড্যানিশ ব্যক্তি চা পান করেন। - ৪ নং বাসায় কফি খাওয়া ব্যক্তি ড্যানিশ হতে পারেন না।
  • পলমল সিগারেট খান যে ব্যক্তি, উনি পাখি পোষেন। - ১ নং বাসায় ডানহিল খায়, তাই পাখি পোষা হয় না।
  • ব্লেন্ড সিগারেট যিনি খান, তিনি বিড়াল পালকের প্রতিবেশি।
  • ঘোঁড়া পোষেন যিনি তাঁর প্রতিবেশি ডানহিল সিগারেট খান। – ১নং এ ডানহিল খায়, তাই ২নং বাসায় ঘোড়া পোষেন। সুতরাং অন্যদের সম্ভাব্য প্রাণী হতে ঘোড়া বাদ যাবে।
  • যিনি ব্লু-মাস্টার সিগারেট খান তিনি বিয়ার পান করেন। - ১ নং এ ডানহিল খায়, তাই বিয়ার পান করেন না। বিয়ার বাদ দিলে শুধু পানি রয়ে যায়। কাজেই ১ নং এ পানি পান করে। অন্যদের উত্তর থেকে পানি বাদ যাবে।
  • জার্মান ব্যক্তি প্রিন্স সিগারেট খান। - ৩ নং এর ব্রিটিশ ব্যক্তি প্রিন্স সিগারেট খান না।
  • ব্লেন্ড সিগারেট খান যিনি, তাঁর প্রতিবেশি পানি পান করেন। - ইতিমধ্যেই ১ নং এ পানি পাওয়া গেছে। কাজেই ওনার প্রতিবেশি ২ নং বাসায় ব্লেন্ড সিগারেট হবে। অন্যদের সম্ভাব্য উত্তর থেকে ব্লেন্ড বাদ যাবে।
বৈশিষ্ট
১ নং বাড়ি
২ নং বাড়ি
৩ নং বাড়ি
৪ নং বাড়ি
৫ নং বাড়ি
রঙ
হলুদ
নীল
লাল
সবুজ
সাদা
জাতীয়তা
নরওয়েজিয়ান
জার্মান,
সুইডিশ, ড্যানিশ,
ব্রিটিশ
জার্মান,
সুইডিশ, ড্যানিশ,
জার্মান,
সুইডিশ, ড্যানিশ,
পানীয় বিয়ার, পানি চা,
বিয়ার, পানি
দুধ
কফি
চা,
বিয়ার, পানি
ধূমপান
ডানহিল
পলমল, ব্লু মাস্টার, ব্লেন্ড, প্রিন্স পলমল, ব্লু মাস্টার, ব্লেন্ড, প্রিন্স পলমল, ব্লু মাস্টার, ব্লেন্ড, প্রিন্স পলমল, ব্লু মাস্টার, ব্লেন্ড, প্রিন্স
পোষা প্রাণী বিড়াল, ঘোঁড়া,
পাখি, মাছ
কুকুর, বিড়াল,
ঘোঁড়া, পাখি,
মাছ
কুকুর, বিড়াল,
ঘোঁড়া, পাখি,
মাছ
কুকুর, বিড়াল,
ঘোঁড়া, পাখি,
মাছ
কুকুর, বিড়াল,
ঘোঁড়া, পাখি,
মাছ

তাহলে যে শর্তগুলো পূরণ হয়ে গিয়েছে সেগুলো হল:
  • ঘোঁড়া পোষেন যিনি তাঁর প্রতিবেশি ডানহিল সিগারেট খান।
  • ব্লেন্ড সিগারেট খান যিনি, তাঁর প্রতিবেশি পানি পান করেন।
বাকী শর্তগুলো থেকে শুধু একটি বিশ্লেষন করি:
  • যিনি ব্লু-মাস্টার সিগারেট খান তিনি বিয়ার পান করেন।- ৩ ও ৪ নং এ নিশ্চিতভাবে বিয়ার পান করে না তাই সেগুলোতে ব্লুমাস্টার সিগারেট খায় না।
    - সুতরাং ৩ নং এ পলমল খায়। বাকীদের থেকে পলমল বাদ যাবে।
  • এতে ৪ নং প্রিন্স খায়।
  • ফলে ৫ নং ব্লু মাস্টার খায়।
  • এবার ৫ নং ব্লু-মাস্টার খায় বলে বিয়ার খায়। ফলে ২ নং চা খায়।

বৈশিষ্ট
১ নং বাড়ি
২ নং বাড়ি
৩ নং বাড়ি
৪ নং বাড়ি
৫ নং বাড়ি
রঙ
হলুদ
নীল
লাল
সবুজ
সাদা
জাতীয়তা
নরওয়েজিয়ান
জার্মান,
সুইডিশ, ড্যানিশ
ব্রিটিশ
জার্মান, সুইডিশ জার্মান,
সুইডিশ, ড্যানিশ,
পানীয়
পানি
চা, বিয়ার
দুধ
কফি
চা, বিয়ার
ধূমপান
ডানহিল
ব্লেন্ড
পলমল, ব্লু মাস্টার পলমল, ব্লু মাস্টার, প্রিন্স পলমল, ব্লু মাস্টার, প্রিন্স
পোষা প্রাণী বিড়াল, মাছ
ঘোঁড়া
বিড়াল, পাখি,
মাছ
কুকুর, বিড়াল,
পাখি, মাছ
কুকুর, বিড়াল,
পাখি, মাছ

এবার কাজ সহজ হয়ে গেল:
  • সুইডিশ ব্যক্তি কুকুর পোষেন। - ২ নং এ ঘোঁড়া পোষে, কাজেই উনি সুইডিশ নন।
  • ড্যানিশ ব্যক্তি চা পান করেন। - ২ নং এ চা পান করেন – কাজেই উনি ড্যানিশ। বাকীগুলোর ড্যানিশ অপশন বাদ।
  • পলমল সিগারেট খান যে ব্যক্তি, উনি পাখি পোষেন। - ৩ নং এ পলমল অর্থাৎ পাখি পোষেন। বাকীদের পাখি অপশন বাদ।
  • ব্লেন্ড সিগারেট যিনি খান, তিনি বিড়াল পালকের প্রতিবেশি। - সুতরাং ১ নং বাসায় বিড়াল পোষে।
  • জার্মান ব্যক্তি প্রিন্স সিগারেট খান। - ৪ নং এ প্রিন্স সিগারেট। কাজেই তিনি জার্মান। বাকী থাকে ৫ নং - তিনি সুইডিশ।
বৈশিষ্ট
১ নং বাড়ি
২ নং বাড়ি
৩ নং বাড়ি
৪ নং বাড়ি
৫ নং বাড়ি
রঙ
হলুদ
নীল
লাল
সবুজ
সাদা
জাতীয়তা
নরওয়েজিয়ান
জার্মান,
সুইডিশ, ড্যানিশ
ব্রিটিশ
জার্মান, সুইডিশ জার্মান,
সুইডিশ, ড্যানিশ,
পানীয়
পানি
চা
দুধ
কফি
বিয়ার
ধূমপান
ডানহিল
ব্লেন্ড
পলমল
প্রিন্স
ব্লু মাস্টার
পোষা প্রাণী বিড়াল, মাছ
ঘোঁড়া
বিড়াল, পাখি,
মাছ
কুকুর, বিড়াল,
পাখি, মাছ
কুকুর, বিড়াল,
পাখি, মাছ

যে শর্তের দুইপক্ষকেই পাওয়া গিয়েছে সেগুলো আবার বাদ দেই
  • ড্যানিশ ব্যক্তি চা পান করেন।
  • জার্মান ব্যক্তি প্রিন্স সিগারেট খান।
  • পলমল সিগারেট খান যে ব্যক্তি, উনি পাখি পোষেন।
  • ব্লেন্ড সিগারেট যিনি খান, তিনি বিড়াল পালকের প্রতিবেশি
বাকী শর্ত হল:
  • সুইডিশ ব্যক্তি কুকুর পোষেন।
বৈশিষ্ট
নং বাড়ি
নং বাড়ি
নং বাড়ি
নং বাড়ি
নং বাড়ি
রঙ
হলুদ
নীল
লাল
সবুজ
সাদা
জাতীয়তা
নরওয়েজিয়ান
ড্যানিশ
ব্রিটিশ
জার্মান
সুইডিশ
পানীয়
পানি
চা
দুধ
কফি
বিয়ার
ধূমপান
ডানহিল
ব্লেন্ড
পলমল
প্রিন্স
ব্লু মাস্টার
পোষা প্রাণী
বিড়াল
ঘোঁড়া
পাখি
কুকুর, মাছ কুকুর, মাছ


সুতরাং ধাঁধার উত্তর হল জার্মান ব্যক্তি মাছ পোষেন!